February 29, 2024, 9:20 am

সততা দেখিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো ছাগলনাইয়ার সিএনজি চালক মনছুর।

৩ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি. কম,
সৈয়দ কামাল,ফেনী থেকেঃসিএনজি অটোরিক্সায় যাত্রীর ফেলে যাওয়া নগদ টাকা,মোবাইল সেট ও স্বর্ণালংকার ফেরৎ দিয়ে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো,ছাগলনাইয়া উপজেলাধীন ৫ নং মহামায়া ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের সিএনজি অটোরিক্সা চালক আবুল মনছুর।ঘটনাটি ঘটেছে ২ মে রোববার বিকেলে।
ফেনী মডেল থানা পুলিশ সূত্রে জানাযায়,রোববার বিকেলে ফেনী রেলওয়ে স্টেশন থেকে মহিপাল যাওয়ার জন্য সিএনজি অটোরিক্সা ভাড়া করেন,ফুলগাজী উপজেলার উত্তর শ্রীপুর গ্রামের কৃষ্ণ ভৌমিকের স্ত্রী মনিকা দেবীনাথ (৩২) ও তার সাথে থাকা বাপ্পী দেবনাথ।তারা অসাবধানতা বশত মনছুরের সিএনজিতে ব্যাগে থাকা ৬ ভরি স্বর্ণালংকার,নগদ ৬ হাজার টাকা ও দুটি মোবাইল সেটসহ ভুলকরে ব্যাগটি গাড়ীর সিটে পেলে রেখে সিএনজি চালক মনছুরকে ভাড়া দিয়ে গাড়ী থেকে নেমেযান।নেমে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর ব্যাগটি খুঁজতে গিয়ে না পেয়ে,হঠাৎ মনিকা দেবনাথের স্বরনে পড়ে ব্যাগটি যে,তারা সিএনজি’র সিটে পেলে রেখে নেমে গিয়েছিল সেই কথাটি।এক পর্যায়ে মনিকা গাড়ীর সিটে ব্যাগ রেখে ভুলে গাড়ী থেকে নেমে যাওয়ার বিষয়টি পুলিশ কন্ট্রোল রুমকে অবহিত করেন।এ দিকে সিএনজি চালক মনছুর মনিকাদের নামিয়ে দিয়ে কিছুদূর আসার পর,হঠাৎ পেছনের দিকে তাকালে সিটের মধ্যে মনিকাদের পেলে যাওয়া ব্যাগটি দেখতে পায়।পরে মনছুর তার গাড়ীতে করে নিয়ে যাওয়া যাত্রীদের বর্ণনা দিয়ে ব্যাগটি পুলিশের কাছে জমা দেওয়ার মনস্থির করেন এবং ব্যাগটি পুলিশের কাছে জমা দেওয়ার উদ্দেশ্যে ফেনী মডেল থানায় নিয়েযান।এরি মধ্যে গাড়ীর সিটে পেলেযাওয়া ব্যাগের মালিক যে,তাদের হারিয়ে যাওয়া ব্যাগের সন্ধানে বিষয়টি পুলিশ কন্ট্রোল রুমে অবহিত করেছেন,সেই বিষয়টি জানতো না মনছুর।নিজ গাড়ীর সিটে পাওয়া ব্যাগটি স্বইচ্ছায় থানায় জমাদিতে যাওয়া,সিএনজি চালক মনছুরের সততার বিষয়টি বুঝতে পেরে,পুলিশ মনছুরকে সমাদরে থানায় বসিয়ে ইফতার করান।
পরে সন্ধ্যায় ফেনী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাজেদুল ইসলামের মাধ্যমে ব্যাগের মালিককে ডেকে এনে সিএনজি চালক মনছুরের উপস্থিতিতে ব্যাগের মালিকে তাদের হারিয়ে যাওয়া মালামালসহ ব্যাগটি বুঝিয়ে দেন পুলিশ।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন


ফেসবুকে আমরা