February 25, 2024, 5:36 am

ওসি মোয়াজ্জেমকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ 

১৭ জুন ২০১৯, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্ট :

 

ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনের জামিন না-মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।সোমবার (১৭ জুন) দুপুরে ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আস সামছ জগলুল হোসেন শুনানি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ওসি মোয়াজ্জেমকে শাহবাগ থানা থেকে ফেনীর সোনাগাজী থানা পুলিশের একটি টিম প্রিজন ভ্যানে করে ঢাকার সিএমএম আদালতে নেয় । সিএমএম আদালতে তাকে হাজতখানায় রাখা হয়। সকাল ১০টার দিকে শাহবাগ থানা পুলিশ ওসি মোয়াজ্জেমকে সোনাগাজী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

আদালতে শুনানির সময় আসামি পক্ষের আইনজীবী ফারুক আহমেদ ওসি মোয়াজ্জেমের জামিনের আবেদন করে বলেন, নুসরাতের যে ভিডিও ছড়িয়েছে তা তিনি করেননি। এ সময় ওসি মোয়াজ্জেমের জামিনের বিরোধিতা করেন বাদী ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন।

উভয় পক্ষের বক্তব্য শোনার পর আদালত জামিনের আবেদন বাতিল করে মোয়াজ্জেমকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এছাড়া আগামী ৩০ জুন মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানির দিন ধার্য করেন।

উল্লেখ্য, গত ২৭ মার্চ সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা নুসরাত জাহান রাফিকে নিজ কক্ষে ডেকে যৌন নিপীড়ন করেন। এ ঘটনায় নুসরাতের পরিবার থানায় অভিযোগ করতে গেলে ওসি মোয়াজ্জেম নুসরাতকে জেরা করে ভিডিও ধারণ করেন। পরবর্তী সময়ে এই ভিডিও ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন। পরে ১৫ এপ্রিল উচ্চ আদালতের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সোনাগাজী মডেল থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন।

২৭ মে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ওইদিন আদালত ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। এরপর থেকে ওসি মোয়াজ্জেম আত্মগোপনে ছিলেন।

পরোয়ানা জারির ২০ দিন পর রোববার (১৬ জুন) হাইকোর্টের সামনে থেকে ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার হন।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন


ফেসবুকে আমরা