July 17, 2024, 7:55 pm
সর্বশেষ:
মেঘনায় কোটা আন্দোলনকারীদের উপর ছাত্রলীগের হামলা মেঘনায় প্রকল্পের প্রায় সাড়ে ৩০লাখ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় কর্মকর্তার ৫ বছরের কারাদণ্ড পার্বতীপুর যমুনা ওয়েল কোম্পানি লিমিটেডের ডিপোতে কর্মরত কয়েকজনকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ  চেয়ারম্যান বাড়ির ঘাটে দৃষ্টিনন্দন ঘাটলা মেঘনায় নদীর ভাঙন রোধে ফেলা হচ্ছে জিওবি ব্যাগ মেঘনায় নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শনে প্রশাসন, ক্ষতি গ্রস্তদের মাঝে শুকনো খাবার বিতরন স্ত্রীসহ আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা ডা. সাবরিনাসহ ৭ জনের নামে দুদকের মামলা কোটা নিয়ে হাইকোর্টের রায়ের ওপর ৪ সপ্তাহের স্থিতাবস্থা যুক্তরাজ্যের নগর মন্ত্রী হলেন টিউলিপ সিদ্দিক

দিনাজপুরে ৫১ জন ছাত্রীকে বন্দী রেখে মানসিক নির্যাতনের অপরাধে মেস মালিক আটক

 

ঢাকা, শনিবার, ০৩ আগষ্ট ২০১৯বিন্দুবাংলা টিভি. কম,     (দিনাজপুর প্রতিনিধি):দিনাজপুর শহরের বালুবাড়ী মহিলা কলেজ সম্মুখে একটি ছাত্রী মেসে অগ্রীম ঘর ভাড়ার জন্য ৫১ জন ছাত্রীকে ৩দিন ধরে বন্ধি রেখে মানিসক নির্যাতন করার অপরাধে পুলিশ মেস মালিক জাহানা বেগমকে আটক করেছে।
গত শুক্রবার রাত ৮টায় স্থানীয় লোকজন পুলিশ ও সাংবাদিকদের মোবাইল করে জানালে সাংবাদিকরা ছুটে যায় এবং গিয়ে দেখে শত শত এলাকাবসাী, কোতয়ালী থানার পুলিশ ও এলাকার কাউন্সিলর অরেজ উক্ত ছাত্রীদের উপর মানসিক নির্যাতনের বিষয়ে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করছে। নির্যাতিত ছাত্রীরা জানায় মৃত লোকমানের স্ত্রী জাহানারা বেগম তার নিজ বাড়ীতে মেয়েদের মেসের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। এবাড়িতে কোন পুরুষ মানুষ না থাকায় রাতে মেসের বাহিরে কে বা কারা জানালা থাপড়ানো, বাহির থেকে আজে বাজে কথা বলা, ভয়ভীতি প্রদর্শন করা প্রতিদিনে ঘটনা ঘটে যাচ্ছে। ছাত্রীরা নিজেদের নিরাপত্তা পাবার জন্য মেস মালিক জাহানারা বেগমকে সিকিউরিটি গার্ড রাখার অনুরোধ জানিয়ে কোন ফল না পেয়ে তারা ১ আগস্ট মেস ছাড়ার কথা জানায়। মেস মালিক একথা শুনে ক্ষিপ্ত হয়ে ৩০ জুলাই তাদেরকে ঘরে তালা লাগিয়ে বন্দি করে রাখে এবং বলে আগস্ট মাসের ভাড়া দিয়ে যেতে হবে। ছাত্রীরা আগস্ট মাসের ভাড়া না দিলে তাদের উপর মানসিক ও শারিরিক নির্যাতন শুরু করে। এমনিকি স্থানীয় মস্তান দুটি ছেলেকে ঘরে ঢুকিয়ে ছাত্রীদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। ইসলামিয়া মহিলা কলেজের আইএ প্রথম বর্ষের ছাত্রী রিপাকে জাহানারা বেগম শারিরিক নির্যাতন করেছে বলে তিনি জানান। গত শুক্রবার রাতে ১ আগস্ট এলাকাবাসী ছাত্রীদের কান্নাকাটি, চিৎকার শুনে থানায় এবং সাংবাদিকদের মোবাইল করলে ঘটনাটি ফাঁস হয়ে পড়ে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে মেস মালিক জাহানারা বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে আাস্এবং ছাত্রীদের অভিভাবকরা এখবর পেয়ে পরদিন এসে তাদের কন্যাদের নিয়ে যান। ছাত্রীরা এই মানসিক ও শারিরিক নির্যাতনের জন্য মেস মালিক জাহানারা বেগমের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি দাবি করেছে। উল্লেখ্য, দিনাজপুর শহরের বিভিন্ন কলেজের ৫১ জন ছাত্রী ১৪শত ১৫টাকা প্রতি মাসে খাওয়া বাদে প্রদান করে আসছে।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন


ফেসবুকে আমরা