February 27, 2024, 8:29 am

বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে সমর্থন দিতে প্রয়োজনে ব্যবস্থা নেবে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।

 

২৮ অক্টোবর ঢাকায় বিএনপির মহাসমাবেশের দিনে ঘটে যাওয়া নানা সহিংস ঘটনার বিষয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত চেয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর। এছাড়া বলেও জানানো হয়েছে।

স্থানীয়সময় সোমবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার এক ব্রিফিংয়ে এ কথা জানিয়েছেন।  সূত্র :চ্যানেল আই

সেদিনের সহিংস ঘটনার জন্য দায়ীদের জবাবদিহিতার আওতায় আনারও আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

ব্রিফিংয়ে ম্যাথিউ মিলার বলেন, ‘গত ২৮ অক্টোবর ঢাকায় যে রাজনৈতিক সহিংসতা হয়েছিল আমরা তার নিন্দা জানাই। একজন পুলিশ অফিসার, একজন রাজনৈতিক কর্মীকে হত্যা, একটি হাসপাতাল ও বাসে আগুন দেওয়ার খবর যেমন অগ্রহণযোগ্য, তেমনি সাংবাদিকসহ সাধারণ মানুষের ওপর আক্রমণও মেনে নেওয়া যায় না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশ সরকারের কাছে ২৮ অক্টোবরের সমাবেশের ঘটনাগুলো পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত এবং সহিংসতার জন্য দায়ীদের জবাবদিহিতার আওতায় দেখতে চাই।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনের দায়িত্ব ভোটার, রাজনৈতিক দল, সরকারসহ সবার।’

মিলার আরও বলেন, ‘বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে সমর্থন দিতে প্রয়োজনে যুক্তরাষ্ট্র ব্যবস্থা নেবে।’
সরকার যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের কূটনৈতিকদের ওপর নজরদারি করছে জানিয়ে সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে মিলার বলেন, ‘আমাদের কূটনীতিকদের সুশীল সমাজ, পেশাজীবী, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, শিক্ষাবিদ, বিভিন্ন সংগঠন এবং ব্যক্তির সঙ্গে দেখা করতে হয়। এটা তাদের নিয়মিত কাজের অংশ এবং আমাদের কূটনীতিকরা তাদের এই কাজ অব্যাহত রাখবেন।’

গত ২৮ অক্টোবর ঢাকায় সমাবেশকে কেন্দ্র করে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে বিএনপি। সেদিনের সংঘর্ষে এক পুলিশ সদস্য ও এক বিএনপিকর্মী নিহত হন এবং সংঘর্ষের সংবাদ সংগ্রহে যাওয়া অন্তত ১৭ জন সাংবাদিক আহত হন।

ওই রাতেই এসব সহিংস ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন


ফেসবুকে আমরা