July 16, 2024, 8:33 pm
সর্বশেষ:
মেঘনায় প্রকল্পের প্রায় সাড়ে ৩০লাখ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় কর্মকর্তার ৫ বছরের কারাদণ্ড পার্বতীপুর যমুনা ওয়েল কোম্পানি লিমিটেডের ডিপোতে কর্মরত কয়েকজনকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ  চেয়ারম্যান বাড়ির ঘাটে দৃষ্টিনন্দন ঘাটলা মেঘনায় নদীর ভাঙন রোধে ফেলা হচ্ছে জিওবি ব্যাগ মেঘনায় নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শনে প্রশাসন, ক্ষতি গ্রস্তদের মাঝে শুকনো খাবার বিতরন স্ত্রীসহ আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা ডা. সাবরিনাসহ ৭ জনের নামে দুদকের মামলা কোটা নিয়ে হাইকোর্টের রায়ের ওপর ৪ সপ্তাহের স্থিতাবস্থা যুক্তরাজ্যের নগর মন্ত্রী হলেন টিউলিপ সিদ্দিক চালিভাঙ্গা নৌ পুলিশ ফাঁড়ি ঠুঁটো জগন্নাথই থাকবে?

আজ তিনি উপজেলার প্যানেল চেয়ারম্যান

বিপ্লব সিকদার।।

বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। ঘরে বৃদ্ধ মা, ভাই, বোন ও ৩ সন্তান। বাবা মারা যান অনেক আগেই।জীবন যুদ্ধে নেমে যান। জীবন যুদ্ধে যুদ্ধ করতে করতে একটা সময় এই অদম্য নারীর ইচ্ছে জাগে দেশের জন্য কিছু করার। যেই চিন্তা সেই কাজ।

সঠিক সালের কথা মনে পড়ছেনা এই টুকু মনে পড়ছে সেননগর বাজারের উত্তর পাশে দড়িকান্দির বালুর মাঠে মেঘনা উপজেলা বিএনপি আয়োজিত একটি সভার প্রধান অতিথি বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন। একঝাঁক নারী নিয়ে একটি অল্প বয়সী নারী সে সভায় প্রধান অতিথির হাতে ফুল দিয়ে বিএনপিতে যোগ দেন। যার কথা বলছিলাম তিনি উপজেলার গোবিন্দ পুর ইউনিয়নের গোবিন্দ পুর গ্রামের দিলারা শিরিন। আজ যিনি হেট্রিক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন এবং উপজেলা প্যানেল চেয়ারম্যান -১ নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি উপজেলা মহিলা দলের সভাপতি নির্বাচিত হন। মেঘনা উপজেলা পরিষদের দ্বিতীয় উপজেলা নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জয়লাভ করেছেন। পরবর্তীতে টানা তিনবার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।জয়িতা পুরস্কার প্রাপ্ত এই নারী একদিকে সংসার, অন্যদিকে রাজনীতি, এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালনে মানুষের সুখে দূঃখে পাশে দাড়িয়ে আকাশ্চুম্বি জনপ্রিয় ব্যক্তি হয়ে উঠেছে দিলারা শিরিন । সকল স্বরযন্ত্র, অসিম প্রতিকূলতাকে পিছনে ফেলে জনতার আস্থা অর্জন করে নিতে সক্ষম হয় তিনি এখন সকল দলের ও মতের মানুষের আস্থার প্রতীক। দিলারা শিরিন রাজনৈতিক জীবনে কুমিল্লা উত্তর জেলা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক এবং মেঘনা উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেছে। ঘরে মা অসুস্থ। বিছানায় শুয়ে আছে সেই মা মাথায় হাত বুলিয়ে দিয়ে মানুষের পাশে দাড়াতে উৎসাহ দিয়েছেন। চলে যেতেন দৌড়ে কারো স্বজন হারা পরিবারকে স্বান্তনা দিতে। স্বজন হারা পরিবারের সাথে শোক ভাগাভাগি করে নিতেন যা বর্তমানে নিচ্ছেন। এই জয়িতা নারী সব কিছুর পাশাপাশি বড় হতে হলে পড়াশোনা করতে হবে এই ভাবনা থেকে ছেলে মেয়েদের পাশাপাশি নিজেকে মাস্টার্স ডিগ্রীধারী হিসেবে তৈরি করেছেন। এই অদম্য শিরিন তার সদ্ব্যবহারের কারনে সকল প্রজন্মের কাছে জনপ্রিয়। তিনি একমাত্র ব্যক্তি যিনি উপজেলা পরিষদের টানা তিনবার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এ বার পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান -১ নির্বাচিত হয়েছেন। অভিনন্দন বার্তায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ভাইরাল। দিলারা শিরিন মেঘনার কৃতি, অসম্ভব জনপ্রিয়তায় আজ তিনি একটি প্রতিষ্ঠান।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য বন্ধ আছে।


ফেসবুকে আমরা