April 15, 2024, 9:54 pm
সর্বশেষ:
মেঘনায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপিত মেঘনায় কাঁঠালিয়া প্রজন্ম সামাজিক সংস্থার ঈদ সামগ্রী বিতরণ মেঘনায় বিনোদন কেন্দ্র না থাকায় ঈদ আনন্দে ভাটা, নিরসন জরুরি এততান কিরতি আনছত, ঘরে আছেনা! মেঘনায় গণ ও যুব অধিকারের ইফতার বিতরণ রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ কাজে নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহার ফতেহাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী মৎসজীবী লীগ : খোকন সভাপতি শরীফ হোসেন সম্পাদক মেঘনায় দোকানে আগুনের ঘটনায় বাবাসহ দুই ছেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রথম বারের মত শতভাগ অনলাইনে মনোনয়ন ফরম জমা দিবে প্রার্থীরা : মো.মুনীর হোসাইন খান রিটার্নিংকর্মকর্তার সাথে আচরণ বিধির মতবিনিময়ের পরেই এক প্রার্থী অপর প্রার্থীকে হুমকির অভিযোগ 

মির্জা ফখরুল শপথ নেননি যে কারনে।

৩০ এপ্রিল ২০১৯,

বিন্দুবাংলা টিভি .কম,

ডেস্ক রিপোর্টঃ

বিএনপির পাঁচজন নির্বাচিত সংসদ সদস্য শপথ নিলেও বাকি রয়েছেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফখরুল শপথ না নেয়ায় বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক মহলে নানা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।
এ ব্যাপারে বিএনপির একজন নেতা নাম প্রকাশ না করে আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে রয়েছেন। তাই প্রতিবাদস্বরূপ তিনি শপথ নেয়া থেকে বিরত রয়েছেন।’
ওই নেতা আরও বলেন, ‘খালেদা জিয়ার প্রতি বিএনপি নেতাদের এমন শ্রদ্ধা-ভক্তি নতুন নয়। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের যখন মনোনয়নপত্র বিতরণ করা হয়, তখন সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ ও যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেননি। কারণ তারা খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনে অংশ নেবেন না। শপথ না নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও সে রকম একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন।’

দলের আরেকটি সূত্রে জানা গেছে, যারা নির্বাচিত হয়েছেন তাদের শপথ নেয়ার প্রবল আগ্রহ ছিল। যদি দলের হাইকমান্ড এ বিষয়ে নেতিবাচক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতো তাহলে তারা তা মানতেন না। দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে শপথ নিলে দলকে আরও বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হতো। শপথের বিষয়ে যাদের অনুমতি দেয়া হয়েছে তারা দলের হয়ে সংসদে আর মহাসচিব বাইরে থেকে কথা বলবেন।
গুঞ্জন রয়েছে, ৯০ দিনের শপথ গ্রহণ প্রসঙ্গে উপযুক্ত কারণ দেখিয়ে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীকে চিঠি দিয়েছেন ফখরুল। তাতে বিএনপি মহাসচিব অসুস্থতার কথা উল্লেখ করেছেন। যদিও স্পিকারের কার্যালয় থেকে বিষয়টি এখনও নিশ্চিত করা হয়নি। এর মধ্যে সরকারের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে খালেদা জিয়ার মুক্তির পর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ নেবেন বলেও দলের ভেতরে আলোচনা হচ্ছে।
যদিও শপথ প্রসঙ্গে কৌতূহল রেখে মহাসচিব মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘সময় হলেই দেখতে পাবেন।’

গতকাল সোমবার (২৯ এপ্রিল) একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফখরুল বাদে বিএনপি থেকে নির্বাচিত আরও চারজন সংসদ সদস্য শপথগ্রহণ করেন। সোমবার বিকেলে জাতীয় সংসদ ভবনে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী তাদের শপথবাক্য পাঠ করান। এর আগে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করেন তারা।

শপথ নেয়া চারজন হলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের মো. আমিনুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের মো. হারুনুর রশীদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের আবদুস সাত্তার ভূঁইয়া এবং বগুড়া-৪ আসনের মোশাররফ হোসেন।
এর আগে গত শনিবার (২৭ এপ্রিল) দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে শপথ নেন ঠাকুরগাঁও-৩ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য জাহিদুর রহমান জাহিদ। পরে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন


ফেসবুকে আমরা