May 28, 2024, 10:51 am
সর্বশেষ:
সেনাবা‌হিনীর বিরুদ্ধে উদ্দেশ‌্য প্রণোদিতভাবে প্রতিবেদন প্রচার করা হচ্ছে : সেনাপ্রধান আগামীকাল মেঘনা উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানদের শপথ কুলিয়ারচর রেলওয়ে স্টেশনে ১ দালাল আটক, ১০ হাজার টাকা জরিমানা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি হয়ে গেলে এ বিশিষ্ট নাগরিকদের আর পাওয়া যায় না : দুদক চেয়ারম্যান সাবেক আইজিপি বেনজীরের সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ সাবেক সহকারী কর কমিশনারের নামে মামলা করেছে দুদক মেঘনায় সেলাই মেশিন ও হুইল চেয়ার বিতরণ নদী খননের বালু বিক্রি করে সরকারি কোষাগারে আসতে পারে শতকোটি টাকা শনাক্তের পরও নিষিদ্ধ ঘনচিনি খালাসের সত্যতা পেয়েছে দুদক উপকর কমিশনারসহ তিন জনের নামে দুদকের মামলা

মুর‍্যাল, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সহ উপজেলা হল রুমের নাম প্রয়াত স্পীকার হুমায়ুন রশিদ চৌধুরীর নামে করার প্রস্তাব বক্তাদের

১৪ জুলাই ২০১৯ বিন্দুবাংলা টিভি. কম, স্টাফ রিপোর্টার :  মুর‍্যাল, স্কুল কলেজ, স্টেডিয়াম সহ উপজেলা হলরুমের নাম প্রয়াত স্পীকার হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী র সম্মানে রাখার প্রস্তাব করেন বক্তারা। শনিবার বিকেলে প্রয়াত স্পীকার হুমায়ুন রশিদচৌধুরী র স্বরণে     মেঘনা উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদ এর আয়োজনে       মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা সভায় বক্তারা এসব প্রস্তাব রাখেন। শফিকুর রহমান মাষ্টার এর সঞ্চালনায় ও মুক্তিযোদ্ধা আবদুল গাফফার এর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি র বক্তব্যে  শফিকুল আলম   উপজেলা প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে সহযোগীদের নাম ও যারা বিরোধিতা করেছে তাদের চিহ্নিত করার আহবান জানান তিনি। তিনি বলেন স্পীকার হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী মেঘনা বাসীর জন্যে কোন দলের না তিনি আপামর জনতার তাই আগামীতে সকল দলের অংশ গ্রহণের মাধ্যমে প্রয়াত স্পীকার হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী র প্রতি সম্মান শ্রদ্ধা নিবেদন করবো। উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাইফুল্লাহ মিয়া রতন শিকদার বলেন আমি প্রথম বিশ্বাষ করতে পারছিলাম না যে শফিকুল আলম ভাইয়ের সাথে স্পীকার হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী র সাথে এত কাছের সম্পর্ক পরে বুঝতে পেরেছি উভয়ের মধ্যে আত্মিক বন্ধন ছিলো। তাই আমি বাস্তবায়ন পরিষদের সাধারন সম্পাদক হয়ে বলতে চাই সেই ভাটির দেশের মানুষটি যে আমাদের পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে চরাঞ্চলীয় জনতাকে মুক্তি দিয়েছেন তার প্রতি সম্মান রাখতে গিয়ে যে সকল প্রস্তাবনা এসেছে সকলে মিলে এ গুলো বাস্তবায়ন করবো ইনশাআল্লাহ। জেলা পরিষদ সদস্য নাসির উদ্দিন শিশির প্রস্তাবনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে জেলা পরিষদ থেকে বরাদ্দ দেওয়ার কথা ও বলেন।  কোন কোন বক্তারা সে সময়ে যারা বিরোধিতা করেছেন এবং তৎকালীন সময়ে এই মহান ব্যক্তিটিকে আসতে বাধা দিয়েছিলেন তাদের রাজাকার হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী    যেন আপামর মেঘনার হৃদয়ে সারা জীবন প্রজন্মের পর প্রজন্ম তাকে মনে রাখে এবং প্রতি বছর এই কর্মসূচি পালন করার সিদ্ধান্ত নেন বক্তারা, অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখে,, মাঈনুদ্দিন মুন্সী তপন চেয়ারম্যান, শফিক মৃধা, হুমায়ুন মৃধা, শাহ আলম, আনোয়ার হোসেন, মো: আলম প্রমুখ।        পরে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন মেঘনা উপজেলা শাখার সভাপতি মাহবুব শিকদার মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন


ফেসবুকে আমরা