May 28, 2024, 10:10 am
সর্বশেষ:
সেনাবা‌হিনীর বিরুদ্ধে উদ্দেশ‌্য প্রণোদিতভাবে প্রতিবেদন প্রচার করা হচ্ছে : সেনাপ্রধান আগামীকাল মেঘনা উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানদের শপথ কুলিয়ারচর রেলওয়ে স্টেশনে ১ দালাল আটক, ১০ হাজার টাকা জরিমানা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি হয়ে গেলে এ বিশিষ্ট নাগরিকদের আর পাওয়া যায় না : দুদক চেয়ারম্যান সাবেক আইজিপি বেনজীরের সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ সাবেক সহকারী কর কমিশনারের নামে মামলা করেছে দুদক মেঘনায় সেলাই মেশিন ও হুইল চেয়ার বিতরণ নদী খননের বালু বিক্রি করে সরকারি কোষাগারে আসতে পারে শতকোটি টাকা শনাক্তের পরও নিষিদ্ধ ঘনচিনি খালাসের সত্যতা পেয়েছে দুদক উপকর কমিশনারসহ তিন জনের নামে দুদকের মামলা

মেঘনার টিএন্ডটি মোড় থেকে সেননগর বাজার সড়কটি মরণফাঁদ

১৭ আগষ্ট ২০২৩ইং, বিন্দুবাংলা টিভি ডটকম, ইমাম হোসেন।।

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার টিএডটি মোড় থেকে  সেননগর বাজার সড়কটি (২ কিমি) দীর্ঘদিন যাবৎ সংস্কারের  অভাবে  খানাখন্দে বেহাল হয়ে গেছে।  গোবিন্দপুর,মানিকার চর, সহ বিভিন্ন  ইউনিয়নের হাজার হাজার জনসাধারণ এই সড়কে যাতায়াত করেন। সেননগর বাজার,মানিকার চর বাজার, দৌলত হোসেন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, উপজেলা পরিষদ, থানা, ভুমি অফিস,হাসপাতাল সহ  ইউনিয়ন পরিষদের সকল সুবিধা অসুবিধা নিয়ে যাতায়াতের মাধ্যম এই সড়কটি।   সেননগর বাজার, মানিকাচর বাজারসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা  মালামাল, নির্মাণ সামগ্রী পণ্যবাহী  পরিবহনে এ সড়কই  একমাত্র ভরসা ।
শিক্ষার্থীরা এ রাস্তা দিয়ে চলাচলে চরম দুর্ভোগে পোহাতে হয়।  মুমূর্ষু রোগী যাতায়াতে মৃত্যু ঝুঁকি থাকে চলতে হয়। চলতি মৌসুমের  বৃষ্টিতে সড়কটিতে  বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্ত হয়ে পানি জমে হাটু জল সমান জলাবদ্ধতা সৃষ্টি  হয়েছে। সিএনজি চালক বাচ্চু বলেন, এই ভাঙ্গা রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে গাড়ি চালাই,গাড়ি, যাত্রী ও নিজের শড়িরের অবস্থা একেবারে নাজুক।
রাস্তার পাশে অবস্থিত মেঘনা পাইলট স্কুলের প্রধান শিক্ষক রুহুল আমিন ভূঁইয়া বলেন, এ রাস্তাটির বেহাল দশার কারণে স্কুল,কলেজের শিক্ষার্থীদের
যাতায়াতে খুব ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। হাসনাবাদ গ্রামের বাসিন্দা রুপ মিয়া বলেন আগে পায়ে হাইটা চলতাম ভালো ছিল এখন পাকা হয়ে না হাটতে পারি না গাড়িতে চরতে পারি।
এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী মো: অহিদুল ইসলাম সিকদার  বলেন, এ  সড়কটি একবার দরপত্র ডাকা হয় কিন্তু কোন ঠিকাদার দরপত্রে অংশ গ্রহণ না করায় আমরা পূণরায় দরপত্রের জন্য প্রস্তাবনা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট পাঠিয়েছি।
উপজেলার চেয়ারম্যান বলেন, সড়কটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, সড়কটি একবার দরপত্র আহ্বান করা হলেও কোন ঠিকাদার অংশগ্রহণ করেনি ফলে নতুন দরে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে শিগগিরই দরপত্র আহ্বান করা হবে।
রাস্তাটির জরাজীর্ণ, বেহাল দশা নিয়ে কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন সময়ে বেশ কিছু জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হওয়ার পরেও অজানা কারণে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন


ফেসবুকে আমরা